প্রোগ্রামিং শিখার তিন গ্রূপ

The shortest path for ফাঁকিবাজ

বলদ টু বস


প্রোগ্রামিংয়ের বলদ টু বস সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে এইখানে যাও

প্রোগ্রামিং নিয়ে ক্যাও ক্যাও, ম্যাও ম্যাও করা পোলাপানকে তিনটা গরূপে ভাগ করা যায়।

নাম্বার ওয়ান: কুয়ারা গ্রূপ।

এরা প্রোগ্রামিং শিখা শুরু না করেই আল্লাদি মেরে বলবে- প্রোগ্রামার হতে হলে ম্যাথ জানা লাগে, ব্রিলিয়ান্ট হওয়া লাগে। প্রোগ্রামিং অনেক কঠিন, শক্ত মুড়ির টিন, হাবলুদের সতীন। এরা হাবিজাবি বলে, কুত কুত খেলে, সময় নষ্ট করার ট্যাবলেট গিলে, কিন্তু প্রোগ্রামিং শিখার কাজটা শুরুই করে না।

গ্রূপ নাম্বার টু: কনফিউজড গ্রূপ

এরা টিউটোরিয়াল কালেক্ট করবে, অন্যের কাছে সাজেশন নিয়ে দুই-তিন মাস ঘুমিয়ে থাকবে, মাঝে মধ্যে প্রোগ্রামিংকে হালকা পাতলা গুতা মারলেও, বেশিরভাগ সময় হতাশ আর কনফিউজড হয়ে, এন্ড্রয়েড ফোনের মতো হ্যাং হয়ে বসে থাকবে।

গ্রূপ নাম্বার থ্রি: কসাই গ্রূপ

কসাই গ্রূপ ওরফে কম্পিউটার সায়েন্স ও ইঞ্জিনিয়ারিং গ্রূপ। এই কসাই গ্রূপের অর্ধেকের বেশি পোলাপান, কয়েক সেমিস্টার শেষ করে- কোপা শামসু না হয়ে; ছাইড়া দে মা, কাইন্দা বাঁচি টাইপের শামছুর চ্যালা হয়ে চোখে মুখে অন্ধকার দেখে। বাড়তি হিসেবে স্যারদের প্যারা, টিউশন ফি’র তাড়া, রেজাল্টের মশকারা খেয়ে না হয় ফিউচার, না হয় আমের আচার। মাঝখান দিয়ে আমের আঁটি হয়ে, খালি বাটি ধরে, কান্নাকাটি করে।

এইসব অলস, কলস, ফাঁকিবাজ, সেলফিবাজদের হতাশা কমিয়ে, বাতাসা খাওয়াতে, আন্তর্জাতিক বলদ কমিটির চেয়ারম্যান, ঝংকার মাহবুব লিখেছেন- প্রোগ্রামিংয়ের বলদ টু বস। যাতে চাকরির বাজারে, চাল্লুদের মাজারে, অবহেলিতরা, বলদ থেকে ডাইরেক্ট বস হয়ে যেতে পারে।


FB post




Question or Feedback:

যদি লোকসম্মুখে প্রশ্ন জিগ্গেস করতে বা উপদেশ, বকাঝকা, গালাগালি, হুমকি দিতে সংকোচ লাগে তাইলে ইমেইল করে দেন jhankar.mahbub@gmail.com