প্রোগ্রামিং করে প্রেমিকা বাছাই

Anyone can Program

হাবলুদের জন্য প্রোগ্রামিং

ভিডিও ডাউনলোড করতে চাইলে গুগল ড্রাইভের এই লিংক অথবা এই লিঙ্কে গিয়ে ডাউনলোড করতে পারেন।
নতুন লেকচার আপলোড করা হলে যদি ইমেইল পেতে চান, তাইলে  রেজিস্ট্রেশন করুন

আজকে শিখবো : vaiables, addition, If-else

স্মার্ট লোক রফিক ভাই::

নিউমার্কেটের দোতলার, রফিক ফ্যাশন হাউজের রফিক ভাই, বাংলাদেশের টপ ক্লাস স্মার্ট লোক।

টি-শার্ট আর জিন্স ::

একশ টাকা দামের একটা টি-শার্ট, আপনি যত্ত বড় চাল্লু পিছ ই হোন না কেনো আপ্নার কাছ থেকে খসাবে কমপক্ষে ২৫০ টাকা। আর আমার মত হাব্লু গুব্লু কাউরে পাইলে তার কাছ থেকে আদায় করবে ৪৫০ টাকা। আর কেউ যদি ভুল করেও তার গার্লফ্রেন্ডকে নিয়ে যায়, তাহলে তাকে চুইল্লা কাইট্টা লবণ মরিচ লাগাইয়া তার কাছ থেকে বের করবে ৯৫০ টাকা। তার মানে দেখা যাচ্ছে, একই টি-শার্টের দাম, কারো কাছ থেকে ২৫০, কারো কাছ থেকে ৪৫০ আবার ঝোপ বুঝে কোপ মেরে দাগাইতেছে ৯৫০ টাকা। তাহলে বুঝা গেলো, টি শার্টের দামটা কিন্তু নির্দিষ্ট থাকতেছে না। চেঞ্জ বা ভেরি করতেছে। কোনো জিনিসের মান বা ভ্যালু যদি ভেরি করে তাকে, প্রোগ্রামিং এর ভাষায় আমরা বলি, ভ্যারিয়েবল(variable)

যেহেতু টি-শার্টের মান বা ভ্যালু ভ্যারি করতেছে সেজন্য আমি একটা ভ্যারিয়েবল লিখবো সেটার নাম দিবো, tShirtPrice অর্থাৎ টি-শার্টের দাম আর আমার কাছ থেকে দাম রাখছে ৪৫০ তাই এই ভ্যারিয়েবলের মান বা ভ্যালু হবে ৪৫০। সেটাকে লেখার উপায় হচ্ছে tShirtPrice = ৪৫০। অর্থাৎ ভ্যারিয়েবলের নাম তারপর সমান সমান চিহ্ন দিয়ে তার মান। তা থেকেই বুঝা যাবে, tShirtPrice এর মান হচ্ছে ৪৫০। দেখছেন কত্ত সোজা।

আবার জিন্স কিনতে গেলে, কোনো একটা জিন্সই কারো কাছ থেকে রাখবে ৩৫০ টাকা, কারো কাছ থেকে ৫৫০ টাকা আর চান্স পাইলে, জায়গা-মতো সিল মেরে কারো কাছ থেকে বের করবে ৯৫০ টাকা। এই জিন্সের দামটাও কিন্তু নির্দিষ্ট থাকে না। এইটাও ভেরি করে। তাই এইটাও একটা ভ্যারিয়েবল আর এই ভ্যারিয়েবলের নাম দিবো, jeansPrice । আমি হাব্লু যেহেতু ৫৫০ টাকা দিছি, আমার এই ভ্যারিয়েবলের মান বা ভ্যালু ৫৫০। আর সেটা লিখবো, jeansPrice = ৫৫০

মোট কত দিতে হবে?

এখন রফিক ভাইয়ের দোকানে গিয়ে আমি যদি একটা টি-শার্ট আর একটা জিন্স কিনে, রফিক ভাইকে জিগ্যেস করি, সর্বমোট কত টাকা হইছে? তাইলে রফিক ভাই টি-শার্ট এবং জিন্সের দামটা যোগ করে আমাকে বলে দিবে, সর্বমোট কত টাকা দিতে হবে। এই একই কাজ যদি কোনো একটা চাল্লু লোক করে, তার টি-শার্ট আর জিন্সের সর্বমোট মূল্য কিন্তু আমাকে যে সর্বমোট মূল্য দিতে হবে তার সমান হবে না। আবার অন্য কেউ যদি তার গার্লফ্রেন্ডকে নিয়ে রফিক ভাইয়ের দোকানে যায়, তার সর্বমোট মূল্যটা কিন্তু অন্য আরেকটা ভ্যালু হবে। তাহলে, বুঝা যাচ্ছে যে, টি-শার্ট আর জিন্সের সর্বমোট ভ্যালুটা কিন্তু ভ্যারি করতেছে। আর কোনো জিনিস ভ্যারি করলে, তাকে আমরা একটা ভ্যারিয়েবলে বসায় দেই। আপনার মন কিন্তু একটা ভেরিয়েবল, একবার একজনের পিছনে ঘুরে। ক্লাসে গেলে মেরিনা, পাশের বাসার জেরিনা আর চান্স পাইলে খুঁজে করিনা। যাই হোক, রফিক ভাইও, টি-শার্ট আর জিন্সের সর্বমোট মূল্যটা অন্য একটা ভ্যারিয়েবলে রাখে আর এই ভ্যারিয়েবলের নাম হচ্ছে, totalPrice ।

কিন্তু একটা জিনিস লক্ষ্য করে দেখবেন। totalPrice ভ্যারিয়েবলটা বিভিন্ন জনের জন্য যদিও করতেছে। সবার ক্ষেত্রেই এই totalPrice এর মান হবে, তারজন্য টি-শার্টের যত দাম প্লাস জিন্সের যত দাম। অর্থাৎ tShirtPrice এবং jeansPrice এই দুই ভ্যারিয়েবলের মানের যোগফল। তাই লেখা যায় totalPrice = tShirtPrice + jeansPrice

আমার প্রথম প্রোগ্রাম ::

রফিক ভাইয়ের দোকানে প্রতিদিন জোড়ায় জোড়ায় অনেক অনেক কপোত কপোতিনি অথবা কিছু দুর্ভাগা চেংড়া সিঙ্গেল পুলাপান এসে, টি-শার্ট এবং জিন্স কিনে, সবাই উনাকে জিজ্ঞেস করে, সর্বমোট কত টাকা দিতে হবে। রফিক ভাই খেয়াল করলেন যে, সর্বমোট কত টাকা হইছে, এই হিসাবটা উনাকে প্রতিদিন শত শত বার করতে হয়। btw, রফিক ভাই মাশাল্লা একখান স্মার্ট পিছ। উনি ইন্টারনেটের চিপা-চাপা গুঁতায় গাতায় বের করে ফেলছে, যদি একটা সিম্পল প্রোগ্রাম বানায় ফেলা যায়। তাইলে লাল মিয়া, কালা মিয়া, ধলা মিয়া, যে কেউ এসে জিজ্ঞেস করুক না কেনো। সর্বমোট মূল্য উনার মাথার ঘিলু খরচ করে বের করা লাগবে না। ওই প্রোগ্রামটাই বলে দিবে, সর্বমোট কত হইছে।

হাবলুদের জন্য প্রোগ্রামিং কোর্সটা করে রফিক ভাই জেনে ফেলছে যে, কোনো একটা প্রোগ্রাম লিখতে হইলে তার একটা নাম দিতে হয়। উনি চিন্তা করে দেখলেন, সবাই এসে যেহেতু জিজ্ঞেস করে কত হইছে। তাই উনি এই প্রোগ্রামটার নাম দিলেন, howMuch আর এই প্রোগ্রামের ভিতরে কোনো কিছু লিখতে হইলে, সেটাকে দুইটা দ্বিতীয় ব্রাকেট দিয়ে সীমানা ঠিক করে দিতে হয়। নিচের চিত্রে দেখুন। এই howMuch প্রোগ্রামের মধ্যে উনি লিখলেন totalPrice আর এই totalPrice এর মান হচ্ছে tShirtPrice এবং jeansPrice এর যোগফল। এই দুইটা জিনিস যোগ করার পর, যোগফল উনি এই প্রোগ্রামের মধ্যে লুকায় রাখলে কোনো লাভ হবে না। বরং যে জিজ্ঞেস করছে বা প্রোগ্রামটাকে ডাক দিবে তাকে এইটার রেজাল্ট দিতে হবে। এইখানে রেজাল্ট হবে totalPrice এর মান। আউটপুট বা রিটার্ন দেয়ার জন্য, জাস্ট সিম্পলি লিখে দেন return তারপর যেটা রিটার্ন করতে চান সেটা। এইখানে আমরা রিটার্ন করতে চাই totalPrice এর মান। তাই লিখবো return totalPrice। প্রোগ্রাম লিখা কিন্তু শেষ।

চমৎকার কলারওয়ালা টি-শার্ট::

টি-শার্ট আর জিন্স গছায় দেয়ার পর রফিক ভাই বুঝে ফেলছে যে, এইলোক কিন্তু একটা মালদার পার্টি। তারে আরও মাম্মু বানানো যায়। সেই মাম্মু বানানোর জন্য, রফিক ভাই পাঁচ মিনিটের জন্য তার চিরাচরিত খাজুর আলাপ জুড়ে দিলেন। তারপর বল্লেন, আমার কাছে একটা স্পেশাল কলার ওয়ালা টি-শার্ট আছে। আমি এইটা যেনো তেনো কাউরে দেখাই না। আপনি যেহেতু দেশী মানুষ, তাই আপনাকে এইটা দেখাচ্ছি। এই বলে, উনি চিপা থেকে একটা কলার-ওয়ালা টি-শার্ট বের করে বললেন। অন্য কেউ হইলে তার কাছে এক হাজার টাকার এক পয়সা কম হইলেও দিতাম না। আপনার যেহেতু চয়েস অনেক ভালো। শুধু আপনার জন্য আমি, এক পয়সাও ব্যবসা করবো না। এইটা আপনাকে, একদাম ৭৫০ টাকায় দিয়ে দিবো। আপনার পকেটের দুরাবস্থার কথা কিন্তু আপনে জানেন। তাই দ্রুত চিন্তা করে নিলেন। আপনি যেই দুই জনের সাথে ডেটিং করার চিন্তা করতেছেন। এই কলার ওয়ালা টি-শার্ট কিনলে আপনার কাছে ডেটিং করার কোনো টাকা থাকবে না।

এই অবস্থায় আপনি চিন্তা করতেছেন।আচ্ছা, এই যে টি-শার্ট খান আমি কিনে ফেললাম। সেটা না কিনে যদি এই কলার ওয়ালা টি-শার্ট কিনি। তাইলে কি অবস্থা দাঁড়াবে। সো, আপনি একটা নতুন ভ্যারিয়েবল লিখলেন যার নাম দিলেন, collarWalaPrice আর এই কলার ওয়ালা টি-শার্টের মূল্য যেহেতু ৭৫০ টাকা তাই আপনার ভ্যারিয়েবলের মানও ৭৫০। আপনার আগে দুইটা ভ্যারিয়েবল ছিলো। একটা ছিলো tShirtPrice, যার মান ছিলো ৪৫০ আরেকটা ছিলো jeansPrice, যার মান ছিলো ৫৫০। এখন নতুন একটা যোগ হইছে collarWalaPrice এর মান হচ্ছে ৭৫০।

কলার ওয়ালা না কলার ছাড়া ?

এখন আপনার কাছে দুইটা অপশন আছে। আপনি যদি কলার ওয়ালা টি-শার্ট কিনেন। তখন আপনার কাছে, collarWala কিনছেন সেটা সত্যি হবে। সেইটাকে বলে, collarWala == true । একটা জিনিস খেয়াল করবেন, একটা সমান সমান চিহ্ন দিয়ে কোনো একটা ভ্যারিয়েবলের মান সেট করা হয়। আর দুইটা সমান সমান চিহ্ন দিয়ে মান একই কিনা সেটা দেখা হয়। অর্থাৎ আপনার যদি collarWala নাম একটা ভ্যারিয়েবল থাকে। আর আপনি যদি কলার ওয়ালা টি শার্ট কিনেন, তাইলে এর মান বা ভ্যালু হবে true। সেই ক্ষেত্রে, আপনাকে সর্বমোট যত টাকা দিতে হবে, সেটা হবে কলার ওয়ালা টি শার্ট আর জিন্সের দামের যোগফল। এই জিনিস বুঝার জন্য ক্লাস টু তো দূর কি বাত, স্কুলেই যাওয়ার দরকার নাই। তবে, রফিক ভাইয়ের দোকানে যেতে হবে কিন্তু। সেইজন্য আমরা লিখি totalPric = collarWalaPrice + jeansPrice । আর যদি কলার ওয়ালা টি শার্ট না কিনেন। তাহলে collarWala আর সত্যি হবে না। সেক্ষেত্রে আপনাকে অন্য অপশনে অর্থাৎ else এ যেতে হবে। সেক্ষেত্রে সর্বমোট যে দাম দিতে হবে সেটা হবে, নরমাল টি শার্ট আর জিন্সের দামের যোগফল। সেটাকে লিখবো, totalPrice = tShirtPrice + jeansPrice

ইলি না বিলি ?

এই জিনিসটা আরেকটা উদাহরণ দিয়ে দেখানো যায়। ধরেন, আপনি ইলি আর বিলি নামে দুইজনের সাথে লাইন মারার চেষ্টা করতেছেন। আপনি যদি ইলিরে পটায় ফেলতে পারলে eliPoteGese এর মান সত্যি হবে। আর ইলি যখন পটে যাবে, তখন আপনি কোনো দেয়ালে বা গাছের মধ্যে লিখে আপনার প্রেম অমর করতে চাইবেন। তখন ওয়ালে গিয়া লিখবেন, Eli + Hablu ।

সেটা লিখতে গেলে একটু খুচরা সমস্যা হচ্ছে, আপনার নাম যে হাবলু সেটা আপনার প্রেমিকাকে বলতে গেলে আপনার প্রেস্টিজে লাগে। তাই আপনি আপনার নাম স্লাইটলি মডিফাই করে লিখছেন, Eli + Bablu। আর যদি আপনি ইলিকে পটাতে ব্যর্থ হোন। তাহলে ওয়ালে গিয়া লিখবেন, Bili + Bablu ।

যা যা শিখলাম::

কোনো একটা প্রোগ্রাম লিখতে হলে, সেটার একটা নাম দিতে হয়। সেই নাম ধরে ডাক দিলে প্রোগ্রামের মধ্যে যা যা করার কথা থাকবে। সেগুলা করে আপনাকে একটা রেজাল্ট বা আউটপুট দিবে। এই যেমন, আপনি যদি রফিক ভাইকে, জিগ্যেস করেন, সর্বমোট কত হইছে। তাইলে উনি howMuch প্রোগ্রামটাকে ডাক দিবে। এই প্রোগ্রামের মধ্যে, আরেকটা ভ্যারিয়েবল আছে, যেটার নাম হচ্ছে, totalPrice. এই totalPrice এর মধ্যে, tShirtPrice আর jeansPrice এই দুইটা জিনিস যোগ করে যোগফল রাখে। তারপর যোগফলটা রিটার্ন করে দেয়, জাস্ট return totalPrice লিখে।

আর যদি আপনার কাছে, দুইটা অপশন থাকে। যেমন, ইলি বা বিলি -এর সাথে আপনি প্রেম করতে পারেন। চাল্লু পোলাপানের চার-পাঁচজনের লগে লাইন একসাথে মারে। কিন্তু আপনিতো হাবলু। একসাথে একজনের বেশি আপনি মেইনটেইন করতে পারবেন না। সো আপনি যদি ইলি -কে পটায় ফেলতে পারেন তাইলে যা যা করার ইলি এর সাথে করবেন। আর না পারলে বিলি এর সাথে করবেন। খবরদার, দুইজনের লগে একসাথে লাইন মারতে গেলে, আমও যাবে, ছালাও যাবে। শেষমেশ, দোকানে গিয়ে ম্যাংগুবার কিনে খাইতে হবে।

সঙ্গেই থাকুন::

পরবর্তী লেকচার টা ডিসেম্বরের ফার্স্ট উইকে আসবে।




Question or Feedback:

যদি লোকসম্মুখে প্রশ্ন জিগ্গেস করতে বা উপদেশ, বকাঝকা, গালাগালি, হুমকি দিতে সংকোচ লাগে তাইলে ইমেইল করে দেন jhankar.mahbub@gmail.com